৫ দফায় দাম বাড়ার পর এবার কিছুটা কমলো স্বর্ণের দাম

অনলাইন ডেস্ক★★

গত দেড় মাসে টানা পাঁচ দফায় বাড়ার পর অবশেষে ভরি প্রতি এক হাজার ১৬৬ টাকা কমেছে স্বর্ণের দাম। মঙ্গলবার স্বর্ণের দাম কমার এ ঘোষণা দিয়েছে স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের সংগঠন বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)। এর আগে জুলাইয়ের ২৪ তারিখ থেকে ২৭ আগস্ট পর্যন্ত আন্তর্জাতিক বাজারের দোহাই দিয়ে পাঁচ দফায় স্বর্ণের দাম বাড়ানো হয়েছে।

যার মধ্যে আগস্টেই বেড়েছে চারবার।নতুন দাম অনুযায়ী- ১০ সেপ্টেম্বর থেকে ২২ ক্যারেটের ভরিপ্রতি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) স্বর্ণের দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৫৭ হাজার ৯১২ টাকা, ২১ ক্যারেটের ভরিপ্রতি স্বর্ণ ৫৪ হাজার ৫২৯ এবং ১৮ ক্যারেটের স্বর্ণ ভরিপ্রতি ৪৯ হাজার ৫১৪ টাকায় বিক্রি হবে।

আরও পড়ুন: এক বান টিনের মূল্য ৭ লাখ টাকা!

একটি টিন কেনা হয়েছে এক লাখ টাকায়। যা বর্তমান বাজার মূল্যের তুলনায় ১০০ গুণেরও বেশি। বিশ্বে হয়তো এই টিনই সবচেয়ে বেশি দামে কেনা হয়েছে। খাগড়াছড়ির ৬-আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন)-এর কিছু ঘর মেরামতের কাজে এমন দামে টিন কেনা হয়েছে বলে একটি প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ওই মেরামতকাজে মাত্র দুই বান টিনের দাম দেখানো হয়েছে ১৪ লাখ টাকা। এছাড়াও কাজ শুরু মাত্র ২০ দিনের মধ্যেই বাজেটের ৭১ লাখ টাকা তুলে নেয়া হয়। অথচ মেরামত কমিটির সদস্য সচিবের দেয়া ‘নোট অব ডিসেন্ট’ থেকে জানা যায়, চার মাসে মাত্র ১৫ ভাগ কাজ হয়েছে। প্রতিবেদনে প্রকল্পের কাজে আরও বেশকিছু অনিয়মের তথ্য তুলে ধরা হয়েছে।

সেখানে উল্লেখ করা হয়, এসব সংস্কারসহ অন্য দুটি কাজের দায়িত্বে ছিল মেসার্স তাপস এন্টারপ্রাইজ ও মেসার্স মিশু এন্টারপ্রাইজ। মিশু এন্টারপ্রাইজের কর্ণধার মোহাম্মদ জসিম। অন্যদিকে তাপস এন্টারপ্রাইজ নামের প্রতিষ্ঠানটিও চলে তার কর্তৃত্বেই।

প্রকল্পের কাজে এসব অনিয়মের বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে জসিম বলেন, ‘আমাকে যেভাবে কাজ করতে বলেছেন, আমি সেভাবেই করেছি। এর বেশি কিছু বলতে পারব না’।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *