রাজশাহীর উন্নয়নে এবং এটিকে একটি পরিচ্ছন্ন ও সবুজ শহর হিসেবে গড়ে তুলতে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের বিভিন্ন উদ্যোগের প্রশংসা করেছেন ভারতীয় হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলি দাশ।

অনলাইন ডেস্ক★★ রাজশাহীর উন্নয়নে এবং এটিকে একটি পরিচ্ছন্ন ও সবুজ শহর হিসেবে গড়ে তুলতে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের বিভিন্ন উদ্যোগের প্রশংসা করেছেন ভারতীয় হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলি দাশ।

রাজশাহীর মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের সঙ্গে সোমবার (২২ জুলাই) বৈঠকে এ কথা বলেন তিনি।

রাজশাহী নগর ভবনে অনুষ্ঠিত বৈঠকে পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়ে আলোচনা করেন বলে এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে ভারতীয় হাইকমিশন।

বৈঠকে রাজশাহীতে বিভিন্ন সময়ে ভারতীয় সহকারী হাইকমিশন আয়োজিত বিভিন্ন অনুষ্ঠানে সহযোগিতার জন্য মেয়রকে ধন্যবাদ জানান হাইকমিশনার।

ভারত ও রাজশাহীসহ বাংলাদেশের বিভিন্ন অংশের মধ্যে সাংস্কৃতিক বিনিময়ের জন্য একটি সমন্বিত পরিকল্পনা তৈরি করা হয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্কের বিদ্যমান ‘সোনালী অধ্যায়’ নিয়ে হাইকমিশনার ও মেয়র উভয়ই সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন। রাজশাহী নগর উন্নয়নে গৃহীত প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নে ভারত সরকারের সহায়তার জন্য মেয়র হাইকমিশনারকে ধন্যবাদ জানান।

তিনি রাজশাহীতে ভারত সরকারের কাছ থেকে আরও বিনিয়োগের আশা প্রকাশ করেন এবং অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প, ব্যবসা ও বাণিজ্য বিষয়ে আরও সহযোগিতার পাশাপাশি মানুষে মানুষে সংযোগ সম্প্রসারণের আহ্বান জানান।

শিক্ষাজীবনে ভারতে কাটানো সময়ের স্মৃতিচারণ করেন এবং ভারত কীভাবে তার জীবনে একটি গুরুত্বপূর্ণ স্থান দখল করে আছে তা উল্লেখ করেন সিটি মেয়র।

বৈঠকে উভয়পক্ষই ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যকার বহুমুখী সম্পর্ক আরও শক্তিশালীকরণের গুরুত্ব পুনর্ব্যক্ত করে। ভারতীয় হাইকমিশনার রাজশাহী নগর ভবনে বঙ্গবন্ধু কর্ণার পরিদর্শন করেন এবং পরিদর্শক বইতে স্বাক্ষর করেন।

এ সময় তার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহীতে নিযুক্ত ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার সঞ্জীব কুমার ভাটি এবং ঢাকাস্থ ভারতীয় হাইকমিশনের দ্বিতীয় সচিব (ভিসা ও কনসুলার) বিশাল জ্যোতি দাস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *